বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি

১৯৭৪ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় আশা-আকাঙ্ক্ষার সাথে সংগতি রেখে বাংলাদেশকে শিল্প সংস্কৃতি ঋদ্ধ সৃজনশীল মানবিক বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি প্রতিষ্ঠা করেন। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি বাংলাদেশের শিল্প সংস্কৃতি বিকাশের একমাত্র জাতীয় প্রতিষ্ঠান।

বিস্তারিত
  1. রূপকল্প

    শিল্প সংস্কৃতি ঋদ্ধ সৃজনশীল মানবিক বাংলাদেশ।
  2. অভিলক্ষ্য

    জাতীয় সংস্কৃতি ও কৃষ্টির উন্নয়ন, সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সংরক্ষন ও প্রসারের মাধ্যমে সকল মানুষের জন্য শিল্প সংস্কৃতির প্রবাহ তৈরি করে শিল্প-সংস্কৃতি ঋদ্ধ সৃজনশীল মানবিক বাংলাদেশ গঠন।
  3. প্রকল্প/কর্মসূচি

    ১. হালুয়াঘাট, দিনাজপুর এবং নওগাঁ ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক একাডেমি নির্মান।
    ২. বিভাগীয় ও জেলা শিল্পকলা একাডেমি নির্মাণ ।
    ৩. ১৫টি জেলা শিল্পকলা একাডেমি মেরামত ও সংস্কার প্রকল্প

লিয়াকত আলী লাকী

মহাপরিচালক

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি

  • চৈত্র সংক্রান্তি - ১৪২১

  • Asian Art Biennale - 2016

  • জাতীয় চলচ্চিত্র উৎসব - ২০১৫

  • কবিতা ও গান - ২০১৫

  • Asian Art Biennale - 2016

  • গঙ্গা-যমুনা নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব-২০১৫

  • Asian Art Biennale - 2016

  • কবি কণ্ঠে কবিতা পাঠ ও গানের অনুষ্ঠান - ২০১৫

  • শাস্ত্রীয় সঙ্গীত, নৃত্য, সেতার ও সরোদ বাদন উদ্বোধনী অনুষ্ঠান - ২০১৫

আসন্ন অনুষ্ঠানসূচী

December 09, 2016

গোল টেবিল বৈঠক, আলোচনা, আলোক প্রজ্বলন ও প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শনী

+
সকল

আমাদের সাথেই থাকুন

বাংলাদেশের সবগুলো জেলায় শিল্পের আলো পৌঁছে দিতে এই একাডেমি দেশের সকল জেলায় এর শাখা স্থাপন করেছে।

এই শাখাগুলো জেলা পর্যায়ে সংস্কৃতি উৎসব, অনুষ্ঠানের আয়োজন ছাড়াও ফাইন ও পার্ফরমিং আর্টের উপর প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে।

মাসিক শিল্পকলা

সকল

পুস্তক সংগ্রহশালা

সাম্প্রতিক অনুষ্ঠানের গ্যালারি

  • Cultural Program in Bangladesh Shilpakala Academy.

  • ঘুড়ি উৎসব

  • স্বাধীনতা দিবস

  • ভাওয়াইয়া সন্ধ্যা

  • উদ্বোধনী অনুষ্ঠান - ২০১৫ (শাস্ত্রীয় সঙ্গীত, নৃত্য, সেতার ও সরোদ বাদন)

  • পহেলা বৈশাখ

  • পুতুল নৃত্য ফেস্টিভাল

  • শিশু সংগীত কর্মশালা

  • শিল্পের আলোয় বঙ্গবন্ধু

  • গণহত্যা স্মরণে

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি

একাডেমির সকল কাজের নির্দেশনা একটি কার্যনির্বাহী পরিষদ ( শিল্পকলা একাডেমি পরিষদ) থেকে দেওয়া হয়। এই পরিষদটির প্রধান সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী। প্রশাসনের দায়িত্বে থাকেন একাডেমির মহাপরিচালক। পরিষদের নেওয়া সকল সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের দায়িত্বেও তিনি থাকেন। পরিষদ থেকে নির্বাচিত একটি কার্যনির্বাহী কমিটি তাকে সকল দায়িত্ব পালনে সহায়তা প্রদান করে।

এছাড়াও এই একাডেমি, চারুকলা ও আলোকচিত্র প্রদর্শনী, নাটক, সংগীত ও নৃত্যনুষ্ঠান, আন্তর্জাতিক উৎসবের এবং প্রতিযোগীতার আয়োজন করে থাকে। পাশাপাশি চারুকলা, সংগীত, নৃত্য, নাটক ও চলচ্চিত্র বিষয়ক গ্রস্থাদি প্রকাশ, গবেষণা এবং প্রশিক্ষণ প্রদান করে থাকে। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গ্রন্থমেলায় অংশগ্রহন এবং প্রকাশনা বিক্রয়ের ব্যবস্থাসহ সিম্পোজিয়াম আয়োজনও করে থাকে।